বাড়ি TECHNEWS সমালোচনার পরও বিতর্কিত নীতিমালাতেই হোয়াটসঅ্যাপ

সমালোচনার পরও বিতর্কিত নীতিমালাতেই হোয়াটসঅ্যাপ

Whatsapp
সমালোচনার ঝড় বয়ে যাওয়ার পরেও নিজেদের বিতর্কিত গোপনতা নীতিমালা নিয়েই এগোতে যাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যম ফেইসবুক মালিকানাধীন মেসেজিং সেবা হোয়াটসঅ্যাপ।

নিজেদের অবস্থান পরিবর্তনের ক্ষেত্রে সবকিছু ঠিক রেখে শুধু ব্যবহারকারীদেরকে নতুন আপডেট নিয়ে পড়তে তাদের ইচ্ছামতো সময় দেবে, আর বাড়তি তথ্য দিয়ে একটি ব্যানার প্রদর্শন করবে অ্যাপটি, প্রতিবেদনে এমনটাই জানিয়েছে রয়টার্স।

চলতি বছর জানুয়ারিতে নিজেদের নতুন গোপনতা নীতিমালা আনতে প্রস্তুতির বিষয়ে ব্যবহারকারীদের অবগত করে এনক্রিপটেড মেসেজিং সেবাদাতা এই অ্যাপটি।

প্রস্তাবিত ওই আপডেটের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের ডেটা নিজেদের মালিক প্রতিষ্ঠান ফেইসবুক ও তার অধীনস্থ অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে শেয়ার করা হবে বলে জানায় গোপনতা রক্ষা করে মেসেজিংয়ের জন্য পরিচিত হয়ে ওঠা এই প্ল্যাটফর্মটি।

এই আপডেট নিয়ে খবর প্রকাশের পরপর বিশ্বজুড়ে সমালোচনা শুরু হয়। ব্যবহারকারীরা হোয়াটস্যাপ ছেড়ে  টেলিগ্রাম আর সিগন্যালসহ প্রতিদ্বন্দ্বী অন্য প্ল্যাটফর্মগুলোর দিকে ঝুঁকে পড়েন। এর ফলে নতুন আপডেট আনার সময় মে মাস পর্যন্ত পিছিয়ে দেয় হোয়াটসঅ্যাপ।

অ্যাপটির সবচেয়ে বেশি ব্যবহারকারীর দেশ ভারতে ফেইসবুক কর্মকর্তারা এ নিয়ে সংসদীয় প্যানেলের প্রশ্নের মুখে পড়েছেন। এর আগে দেশটির প্রযুক্তি মন্ত্রী অ্যাপটিকে তাদের দেশ ছাড়তে বলেছেন৷

অন্যদিকে হোয়াটসঅ্যাপ জানিয়েছে, এই প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করতে হলে এই আপডেটে রাজি হতেই হবে এবং বিষয়টি  ব্যবহারকারীদেরকে মনে করিয়ে দেওয়া অব্যাহত থাকবে।

প্রতিষ্ঠানটি বলেছে, “আমরা এ নিয়ে যেসব উদ্বেগ শুনছি তা নিয়ে আরও বেশি তথ্য প্রকাশ করছি।”

এদিকে অস্ট্রেলিয়ায় বৃহস্পতিবার থেকে সব সংবাদ কনটেন্ট সরিয়ে নিয়েছে ফেইসবুক। দেশটির প্রকাশক আর রাজনীতিবিদদের চাপের মুখে এই পদক্ষেপ নেয় তারা। ঠিক এমন সময়েই নতুন আপডেট নিয়ে অনড় থাকার কথা জানালো হোয়াটসঅ্যাপ।