বাড়ি COMPUTER প্রায় ৩০ হাজার ম্যাকে মিলেছে ম্যালওয়্যারের অস্তিত্ব

প্রায় ৩০ হাজার ম্যাকে মিলেছে ম্যালওয়্যারের অস্তিত্ব

অ্যাপল কম্পিউটারে কখনও ভাইরাস বা ম্যালওয়্যারের আক্রমণ হয় না এমন ধারণা নিয়ে যারা তৃপ্তির ঢেকুর তুলছিলেন তারা এবার একটু গা ঝাড়া দিতে পারেন। ম্যাক কম্পিউটারে রহস্যময় এক ম্যালওয়্যারের অস্তিত্ব খুঁজে পেয়েছেন নিরাপত্তা গবেষকরা।
অঘটন ঘটিয়ে নিজেকে মুছে দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে ওই ম্যালওয়্যারটির মধ্যে। এতে করে কোনো ম্যাক আক্রান্ত হওয়ার পর ঠিক কী কারণে সমস্যা হচ্ছে তা আর জানা যেতো না। তবে, গবেষকদের চোখ ফাঁকি দিতে পারেনি ম্যালওয়্যারটি।

আর্স টেকনিকার বরাত দিয়ে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট দ্য ভার্জ এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে, ম্যালওয়্যারবাইটস ও রেডক্যানারি’র নিরাপত্তা গবেষকরা প্রায় ৩০ হাজার ম্যাকে রহস্যময় ওই ম্যালওয়্যার খুঁজে পেয়েছেন। এর আক্রমণের কারণে ম্যাকে ঠিক কী হতে পারতো, তা এখনও জানা যায়নি। গবেষকরা এর নাম দিয়েছেন ‘সিলভার স্প্যারো’।

এ ব্যাপারে ব্লগ পোস্ট প্রকাশ করেছে নিরাপত্তা সংস্থা রেডক্যানারি। ওই ব্লগ পোস্টে প্রতিষ্ঠানটি লিখেছে, একটি নয়, ম্যালওয়্যারের একাধিক সংস্করণ খুঁজে পেয়েছে তারা। ইনটেল চিপ চালিত ম্যাকে আক্রমণ করতে পারবে এমন ম্যালওয়্যারের পাশাপাশি অ্যাপলের এম১ চিপ চালিত ম্যাকে আক্রমণ করতে পারবে এমন ম্যালওয়্যার সংস্করণও ধরা পড়েছে।

সিলভার স্প্যারো ম্যালওয়্যারটি কোনো ক্ষতিতে ভূমিকা রেখেছে- এমন প্রমাণ এখনও মেলেনি। রেড ক্যানারি নিজেদের ব্লগপোস্টে উল্লেখ করেছে, অ্যাপল এরই মধ্যে বাইনারি বাতিল করেছে। এতে করে ভুল ক্রমেও আর ম্যাক ব্যবহারকারীরা ম্যালওয়্যারটি ইনস্টল করতে পারবেন না।

ম্যাকে ইনটেল চিপের বদলে নিজ চিপ ব্যবহারের সিদ্ধান্ত আগেই জানিয়েছে অ্যাপল। এতে করে যে সুযোগ তৈরি হবে তা ব্যবহার করে বিভিন্ন অপরাধীরা ম্যালওয়্যার দিয়ে দিতে পারে, – সতর্ক করেছেন গবেষকরা।